প্রজাতন্ত্র দিবস

ফন্ট সাইজ:

     সংবিধান রচিত হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী চৌধুরী মোহাম্মদ আলীর সরকার ২৩ শে মার্চকে প্রজাতন্ত্র দিবস ঘোষণা করেন এবং এই ২৩ শে মার্চ হইতে শাসনতন্ত্র প্রবর্তনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। ১৭ই মার্চ (১৯৫৬) ৫৬, সিম্পসন রোডে সর্বদলীয় গণতান্ত্রিকক শাসনতন্ত্র কর্মপরিষদের সভায় প্রজাতন্ত্র দিবসে সরকার কর্তৃক আয়োজিত আনন্দোৎসবে যোগদান না করিবার আহবান জানানো হয়। পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী লীগ উপরোক্ত সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রজাতন্ত্র দিবসের আনন্দোৎসবে অংশগ্রহণ করিতে অস্বীকৃতি জানায়। আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্তে জনাব হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী বিচলিত হইয়া মাওলানা ভাসানী, শেখ মুজিবুর রহমান ও আমাকে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য এক জরুরী তারবার্তা পাঠান । জনাব সোহরাওযাদী ছিলেন নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতিবিদ ও সুদক্ষ পার্লামেন্টরিয়ান। দেশের সংবিধানের কতিপয় ধারার সহিত দ্বিমত থাকিতে পারে, কিন্তু সংবিধান সংশোধনের বিধানও শাসনতন্ত্রের আছে। সুতরাং সংবিধান প্রবর্তনে বাধা সৃষ্টির অর্থ ব্যক্তি বিশেষের খেয়াখখুশীকে শাসনতান্ত্রিক মর্যাদা দানের শামিল। তাই বিজ্ঞ সোহরাওয়ার্দীর ভবিষ্যৎ পরিণতি তাঁহারা দিব্যচক্ষে অবলোকন করিয়াই নিম্নোক্ত জরুরী তারবার্তা প্রেরণ করেনঃ

Oli Ahad

12/1, K.M. Das Lane, Dhaka

" I am deeply grieved and astouneded at resolutionn not to participate on Republic Day Which is Pakistan Day (stop) Resentment Against constitution should not be carried to extent of dessociation from Pakistan Day. These two matters quite independent. (Stop) Pakistan Republic Day will be observed throughout world, special delegations from over forty coutries arriving here to participate (stop) East Pakistan dissociation will damage Pakistan cause your resolution will seriously damage cause of party. Don't damage permanent cause for temporary advance (stop). Power is not pakistan it is temporary agent (stop ) republic Day is state and National function and not party fuction, your diissociation is creating grave misunderstanding an being construed as opposition to Republic inspite of words to the contrary as action more important than words, constitution cab be ammended (stop) Republic Day is National Day and will be obserbed every year. Unilateral decision on such importat matter most unfortunate. I appeal to you as true patriots to observe Republic Day as birthday of Republic of Pakistan. (stop) Earnestly request you to reconsider and issue derectives to participate in celebrations where you can stress your resentment against constitution (stop) Everything at Stake ont this issue.

          Republic Day celebrations are state functions and not party functions. This  a good ground for reversing ecisiion.''

Karach Sadar Night Post 17.03.56 Oli Ahad,
Awami league, Simpson RD.

                                                                                                ''Suhrawardy"

অলি আহাদ
১২/১, কে,এম, দাস লেন, ঢাকা। 
‘‘প্রজাতন্ত্র দিবস যাহা নাকি পাকিস্তান দিবস তাহাতে অংশ গ্রহণ না করার প্রস্তাবে আমি মর্মাহত ও বিস্মিত। সংবিধানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকে পাকিস্তান দিবসে অংশ গ্রহণ করা হইতে বিরত থাকার পর্যায়ে পর্যন্ত টানিয়া নেওয়া সমীচীন নয়। এই দুইটি ব্যাপার সম্পূর্ণ আলাদা। পাকিস্তান দিবস সারা বিশ্বেই পালিত হইবে। চল্লিশটিরও অধিক সংখ্যক দেশ হইতে এই দিবসে অংশ গ্রহণের জন্য প্রতিনিধিবর্গ এখানে আসিতেছেন। এই অনুষ্ঠান হইতে পূর্ব পাকিস্তানের বিচ্ছিন্নতা পাকিস্তানের আর্দশকে বিপর্যস্ত করিবে। তোমাদের প্রস্তাব পার্টির লক্ষ্যকেও বিপর্যস্ত করিবে। সাময়িক সুবিধার জন্য জন্য স্থায়ী আদর্শকে বিনষ্ট করিও না। ক্ষমতাই পাকিস্তান নয়, ইহা সাময়িক ব্যাপার। প্রতাজন্ত্র দিবস হইতেছে রাষ্ট্রীয় ও জাতীয় অনুষ্ঠান-পার্টির অনুষ্ঠান নয়। এই অনুষ্ঠান হইতে তোমাদের বিরত থাকাটা মারাত্মক ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি করিতেছে এবং ইহাকে প্রজাতন্ত্রের বিরোধিতা হিসাবে চিহ্নিত করা হইতেছে যদিও প্রকৃতক্ষেত্রে কথার চাইতে কাজই বড়। সংবিধানের সংশোধন করা যাইতে পারে। প্রজাতন্ত্র দিবস একটি জাতীয় দিবস যা প্রতি বৎসরই উদযাপিত হইবে। এ ধরণের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে একক সিদ্ধান্ত গ্রহন দুঃখজনক। প্রজাতন্ত্র দিবসকে এই প্রজাতন্ত্রের জন্মদিবস হিসাবে কপালন করার জন্য সত্যিকার দেশপ্রেমিক হিসাবে তেমাদের প্রতি আমরা আবেদন রইল। বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার জন্য এবং এই দিবস উদযাপনে নির্দেশ জারি করার জন্য আন্তরিকভাবে অনুরোধ জানাই-উদযাপনকালে সংবিধানের বিরুদ্ধে তোমাদের বিক্ষোভ জোরের সাথে প্রকাশ করিতে পার। এই বিষয়ে সবকিছুই এখন ঝুঁকির মুখে। 
প্রজাতন্ত্র দিবস উদযাপন হইতেছে রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠান-দলীয় অনুষ্ঠান নয়। সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য ইহা এক উত্তম যুক্তি হইতে পারে।’’ 
করাচী সদর নাইট পোষ্ট ১৭-০৩-৫৬, অলি আহাদ, 
আওয়ামী লীগ, সিম্পসন রোড। 
‘‘সোহরাওয়ার্দী’’ 
 
     অম্লান বদনে স্বীকার করিতে হইবে, চৌধুরী মোহাম্মদ আলী ও জনাব হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় মাত্র ৬ মাসের শাসনতন্ত্র প্রণীত ও গৃহীত হইয়াছিল এবং ১০ বৎসরে দেশ সর্বপ্রথম সংবিধান পাইয়াছিল। সংবিধান মোতাবেক গণপরিষদ অন্তর্ববর্তীকালীন জাতীয় পরিসদে রূপান্তরিত হয়। শেরে বাংলা এ,কে ফজলুল হক এক বিবৃতিতে গভর্ণর জেনারেল ইস্কান্দার মীর্জাকে ‘‘খাঁটি বাঙালী’’ সার্টিফিকেট দিয়া পাকিস্তানের রাষ্ট্রপ্রধান নির্বাচিত করেন ও বিণিময়ে তিনি উর্দু ভাষী রাষ্ট্রপ্রদান ইস্কান্দার মীর্জা কর্তৃক পূর্ব পাকিস্তানের গভর্ণর নিযুক্ত হন। অথচ ইহা কাহার অজানা যে, শেরে বাংলার মত বিশাল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের জন্য গভর্ণর পদ ছিল তুচ্ছ।